শনিবার , ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৯ | সকাল ৮:১৫

এইমাত্র পাওয়া:

৥ আমার বাংলা TV: পুরান ঢাকার চকবাজারে লাশ হস্তান্তর শুরু, ৪১ জনের পরিচয় শনাক্ত ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ,ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শোক ৥
৥ আমার বাংলা TV: কক্সবাজার টেকনাফে র‌্যাব ও বিজিবির সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত ২ ৥
৥ আমার বাংলা TV: ২২ লাশ শনাক্তে ডিএনএ টেস্ট হবে স্বজনদের ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাজধানী অগ্নিনির্বাপক ব্যবস্থা ছিল না ভবনে: ডিএসসিসির তদন্ত দল চকবাজারে অগ্নিকাণ্ড ৥
৥ আমার বাংলা TV: ময়মনসিংহে পুলিশের সঙ্গে ‘বন্দুকযুদ্ধে মাদক ব্যবসায়ী’ নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: লাশের মিছিল গোটা দেশকে করেছে শোকার্ত ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাসায়নিক বিক্রেতাদের আইনের আওতায় আনা হবে: ওবায়দুল কাদের ৥
৥ আমার বাংলা TV: পুরান ঢাকায় ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, মৃতের সংখ্যা বেড়ে ৭৮ ৥

সারাদেশে ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করছেন রাস্তায় গাড়ি নেই, চরম দুর্ভোগ।

আমার বাংলা TV : সংসদে সদ্য পাস হওয়া ‘সড়ক পরিবহন আইন ২০১৮’-এর কয়েকটি ধারা সংশোধনসহ আট দফা দাবিতে সারাদেশে ডাকা ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতি পালন করছেন পরিবহন শ্রমিকরা। এতে চরম ভোগান্তিতে পড়েছেন রাজধানীসহ সারাদেশের মানুষ।পরিবহন শ্রমিকদের কর্মবিরতির কারণে রোববার রাস্তায় কোন যানবাহন চলছে না। ফলে অফিসগামী ও সাধারণ যাত্রীরা পড়েছেন চরম বিপাকে।রাজধানীতে অফিসগামী মানুয গাড়ির অপেক্ষায় রাস্তায় দাঁড়িয়ে আছেন হাজারো মানুষ। গাড়ি না পেয়ে অনেকেই হেঁটে কিংবা রিকশাভ্যানে করে কর্মস্থলের উদ্দেশ্যে রওনা দিয়েছেন।

রাজধানীর বাস স্টপেজগুলোতে হাজারো মানুষের ভিড় -সমকাল

এর আগে শনিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবের সামনে আয়োজিত সমাবেশে  সারাদেশে রোববার সকাল ৬টা থেকে ৪৮ ঘণ্টার ‘কর্মবিরতি’ পালনের ডাক দেয় সরকার সমর্থক হিসেবে পরিচিত সংগঠন সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন। নৌপরিবহনমন্ত্রী শাজাহান খান এই সংগঠনের কার্যকরী সভাপতি। তিনি শনিবারের সমাবেশে যাননি।সমাবেশ থেকে ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতির কর্মসূচি ঘোষণার পর ফেডারেশনের সভাপতি ওয়াজউদ্দিন খান ও সাধারণ সম্পাদক ওসমান আলীর স্বাক্ষরিত বিজ্ঞপ্তিতে একই কর্মসূচি ঘোষণা করা হয়। ফেডারেশনের নেতারা সমকালকে জানিয়েছেন, ধর্মঘট ডেকে সরকারের সঙ্গেও বিরোধে যেতে চান না তারা। ভোটের সময় পরিবহন শ্রমিকদের পাশে পেতে কর্মবিরতির মতো নমনীয় কর্মসূচিতেই সরকার তাদের দাবি মেনে নেবে বলে মনে করছেন নেতারা। আট দফা দাবিতে গত ৬ অক্টোবর গুলিস্তানে সমাবেশ করেন শাজাহান খানপন্থি নেতারা। দাবি পূরণে ১২ অক্টোবর পর্যন্ত সময় বেঁধে দেওয়া হয়েছিল।

ফেডারেশনের সহসভাপতি সাদিকুর রহমান হিরু সমকালকে জানান, ধর্মঘট নয় ‘কর্মবিরতি’ পালন করবেন পরিবহন শ্রমিকরা। তিনি দাবি করেন, গাড়ি বন্ধ রাখতে কাউকে জোর করা হবে না। বাস, ট্রাক, অটোরিকশাসহ সব ধরনের যানবাহন সারাদেশে বন্ধ রাখবেন শ্রমিকরা। কর্মসূচি ঘোষণা করলেও এখন পর্যন্ত সরকারের কাছ থেকে আলোচনার ডাক পাননি বলে জানিয়েছেন সাদিকুর রহমান হিরু। তিনি সমকালকে বলেন, সরকার তাদের দাবি মানেনি, আলোচনার জন্যও ডাকেনি। তাই কর্মসূচি দিতে বাধ্য হয়েছেন। সমাবেশ চলাকালে সড়ক পরিবহন কর্তৃপক্ষের (বিআরটিএ) ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তারা টেলিফোন করে আলোচনার আমন্ত্রণ জানান। কিন্তু আনুষ্ঠানিক চিঠি না পাওয়া পর্যন্ত আলোচনায় বসবে না ফেডারেশন। ৪৮ ঘণ্টার কর্মবিরতির পরও দাবি আদায় না হলে নতুন কর্মসূচি দেওয়া হবে বলে জানান হিরু। 

গত ২৯ জুলাই বেপরোয়া বাসের চাপায় রাজধানীর বিমানবন্দর সড়কে দুই শিক্ষার্থীর মৃত্যুর পর আন্দোলনে নামে ছাত্রছাত্রীরা। নিরাপদ সড়কের দাবিতে বহুল আলোচিত এ আন্দোলন সারাদেশে ছড়িয়ে পড়ে। আন্দোলন চলাকালে সড়ক পরিবহন আইন মন্ত্রিসভায় চূড়ান্ত অনুমোদন দেয় সরকার। বহুল আলোচিত এই আইনের খসড়া এর আগে আট বছর ধরে ঝুলে ছিল। গত ১৯ সেপ্টেম্বর আইনটি সংসদে পাস হয়েছে। সড়কে নিয়ম ভঙ্গে এ আইনে সাজা বাড়ানো হয়েছে। বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে প্রাণহানি ঘটানোর সাজা তিন বছর থেকে বাড়িয়ে পাঁচ বছর করা হয়েছে। হতাহত ব্যক্তি ও তার পরিবারকে পাঁচ লাখ টাকা জরিমানা দিতে হবে দায়ী গাড়ির চালক ও মালিককে। লাইসেন্স ছাড়া গাড়ি চালানোর অপরাধে জেল-জরিমানা বেড়েছে। বেড়েছে ফিটনেসবিহীন গাড়ি চলাচলের সাজাও। চালক ও তার সহকারীর শিক্ষাগত যোগ্যতা নির্ধারণ করে দেওয়া হয়েছে। 

পরিবহন শ্রমিকরা এসব কঠোর বিধানের বিরোধী। তাদের দাবি, সড়ক দুর্ঘটনার মামলা জামিনযোগ্য করতে হবে। শ্রমিককে পাঁচ লাখ টাকা অর্থদণ্ড দেওয়া যাবে না। সড়ক দুর্ঘটনা তদন্ত কমিটিতে শ্রমিক প্রতিনিধি রাখতে হবে। চালকের লাইসেন্সপ্রাপ্তির শিক্ষাগত যোগ্যতা পঞ্চম শ্রেণি করতে হবে। অতিরিক্ত পণ্য বহনের জরিমানা কমানো ও শাস্তি বাতিল করতে হবে। সযানবাহনের মালিক শ্রমিকরা। এ সংগঠনটি অবশ্য শাজাহান খান সমর্থিত না। শাজাহানপন্থিরা তখন সরকারকে দাবি পূরণে সময় বেঁধে দিয়েছিলেন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান কামালের সঙ্গে বৈঠকের পর গত ৯ অক্টোবর ধর্মঘট প্রত্যাহার করে নেন পণ্যবাহী যানবাহনের মালিক শ্রমিকরা। এরপর এখন মাঠে নামছে সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন।

আমার বাংলা নিউজ / অক্টোবর ২8 ২০১৮

 

About amarbangla

amarbanglanews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *