বুধবার , ১৯ ডিসেম্বর ২০১৮ | সকাল ১০:৩১

এইমাত্র পাওয়া:

৥ আমার বাংলা TV: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বুকের রক্ত দিয়ে আপনাদের অধিকার প্রতিষ্ঠা করব ৥
৥ আমার বাংলা TV: কলচার্জ বাড়ানোর ওপর হাইকোর্টের নিষেধাজ্ঞা ৥
৥ আমার বাংলা TV: জনগণ বিএনপি নেতৃত্বাধীন সাম্প্রদায়িক শক্তিকে প্রত্যাখ্যান করবে ৥
৥ আমার বাংলা TV: বিএনপি রাজনীতিকে অপরাধ জগতে নিয়ে গেছে: শেখ হাসিনা ৥
৥ আমার বাংলা TV: হামলার বিষয়ে আইজিপিকে তথ্য দেবেন ড. কামাল ৥
৥ আমার বাংলা TV: শ্রীবরদীতে প্রেমিক যুগলের লাশ উদ্ধার ।
৥ আমার বাংলা TV: ফেনীতে বাসচাপায় ২ সহোদর নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: জামায়াত নিয়ে প্রশ্নে চটে গেলেন কামাল ৥
৥ আমার বাংলা TV: অস্বাভাবিক সরকার আনার পাঁয়তারা চলছে: তথ্যমন্ত্রী ।
৥ আমার বাংলা TV: সিংগাইরে বিএনপি-আ.লীগের পাল্টাপাল্টি হামলার অভিযোগ ৥
৥ আমার বাংলা TV: সিরাজগঞ্জে ধানের শীষে ভোট চাইলেন কনক চাঁপা ৥
৥ আমার বাংলা TV: সিরাজগঞ্জে পুলিশ-বিএনপি সংঘর্ষে পুলিশসহ আহত ১৫ ৥
৥ আমার বাংলা TV: উইন্ডিজকে ২০০ রানের আগেই আটকাল বাংলাদেশ ৥
৥ আমার বাংলা TV: অতিরিক্ত ৪০০ কোটি টাকা বরাদ্দ হচ্ছে ৥
৥ আমার বাংলা TV: উইন্ডিজকে গুঁড়িয়ে জয়ের উৎসবে টাইগাররা ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাজশাহীতে ট্রাকচাপায় ২ নারী নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: চীন থেকে মালামাল আনতে প্রয়োজন ১শ’ কোটি টাকা ৥
৥ আমার বাংলা TV: বগুড়ায় ভোট করতে নয়, এসেছি নেত্রীর প্রতিনিধি হিসেবে: ফখরুল ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাজধানীতে নৌকার প্রচারণায় তারকারা ৥
৥ আমার বাংলা TV: গাড়িবহরে হামলা: ড. কামালের সংবাদ সম্মেলন বিকালে ৥
৥ আমার বাংলা TV: তুরস্কে ট্রেন দুর্ঘটনায় নিহত ৯, আহত ৯০ ৥
৥ আমার বাংলা TV: বাংলাদেশ-উইন্ডিজ একাদশে যারা আছেন ৥
৥ আমার বাংলা TV: ক্ষমতায় না এলে পদ্মা সেতুর কাজ বন্ধ হয়ে যাবে ৥
৥ আমার বাংলা TV: স্মৃতিসৌধ থেকে ফেরার পথে ড. কামালের গাড়িবহরে হামলা ৥
৥ আমার বাংলা TV:হার্ডিঞ্জ ব্রিজে ট্রেনের ছাদ থেকে পড়ে ৩ জনের মৃত্যু ৥
৥ আমার বাংলা TV: অবৈধ বিদেশি কর্মীদের বৈধ করবে না মালয়েশিয়া ৥
৥ আমার বাংলা TV: ইনস্টাগ্রাম গ্রাহকদের জন্য নতুন ফিচার ৥
৥ আমার বাংলা TV: নওগাঁ-১ আসনে লড়াই হবে নৌকা ও ধানের শীষে ৥
৥ আমার বাংলা TV: ঘানার বিশ্ববিদ্যালয় থেকে সরানো হল গান্ধীর মূর্তি ৥
৥ আমার বাংলা TV: স্ট্রাসবার্গে হামলায় সন্দেহভাজন যুবক পুলিশের গুলিতে নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাজধানীতে ব্লেজার বেচাকেনা তুঙ্গে ৥
৥ আমার বাংলা TV: টেকনাফে ‘বন্দুকযুদ্ধে’ তালিকাভুক্ত মাদক ব্যবসায়ী নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: রাজধানীতে কাভার্ডভ্যানচাপায় ২মোটরসাইকেল আরোহী নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: খাশোগি হত্যায় যুবরাজের নিন্দা জানাল মার্কিন সিনেট ৥
৥ আমার বাংলা TV: একাদশে ফিরছেন মিঠুন-সাইফউদ্দিন ৥
৥ আমার বাংলা TV: এখন শুধু নৌকায় সিল, সমস্যা পরে দেখা যাবে ৥
৥ আমার বাংলা TV: টেকনাফে বিএনপির ১৮ নেতাকর্মী আটক ৥
৥ আমার বাংলা TV: বার্জার পেইন্টস পেল আইসিএমএবি অ্যাওয়ার্ড ৥
৥ আমার বাংলা TV: যুক্তরাজ্যে আস্থাভোটে টিকে গেলেন টেরেসা মে ৥
৥ আমার বাংলা TV: বুদ্ধিজীবী স্মৃতিসৌধে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার শ্রদ্ধা ৥
৥ আমার বাংলা TV: লুটপাটকারীদের থেকে দেশকেই অবশ্যই মুক্ত করব: ড. কামাল ৥
৥ আমার বাংলা TV: আগামী নির্বাচনে সাম্প্রদায়িকতার বিষবৃক্ষ উৎপাটিত হবে: কাদের ৥

বিশ্বনবী : আঁধারে আলোর পরশ।

আমার বাংলা TV : পৃথিবী। মানব সৃষ্টির আগে যার সৃষ্টি। সৃষ্টিকর্তা মানুষকে পাঠানোর আগে পৃথিবীকে মানুষের বাসযোগ্য করেছেন। তারপর মানুষকে পাঠিয়েছেন। মানুষের জন্য আল্লাহর পক্ষ থেকে এ এক বাড়তি নেয়ামত। তারপর মানুষকে নির্দেশ দিয়েছেনÑ ‘পৃথিবীকে সুন্দর করে সাজানোর পর তোমরা একে নষ্ট করো না।’ (সূরা আরাফ : ৫৬)।ঐতিহাসিক এক সত্য হচ্ছে, মানুষ এমন এক সৃষ্টিÑ যারা যুগে যুগে আল্লাহর এ নির্দেশকে অমান্য করেছে। জুলুম-নির্যাতন, পাপাচার-অনাচার, শিরিক-কুফুরি ইত্যাদি নানা অপকর্ম দিয়ে মানুষ তাদের সমাজকে নষ্ট করেছে। সেই নুহ (আ.) এর সময় থেকে আজকের সমাজ পর্যন্ত এ কথার সত্যতা প্রমাণিত।আল্লাহ বড় মহান। তিনি যখনই দেখেন পৃথিবীর পরিবেশ বদলে যাচ্ছে, মানুষ গায়রুল্লাহর ইবাদত করে জাহান্নামের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেÑ তখনই তিনি তাদের সঠিক পথে নিয়ে আসতে তার পক্ষ থেকে বিশেষ দূত পাঠিয়েছেন। আল্লাহ বলেন, ‘আর আমি প্রত্যেক গোত্রে রাসুল পাঠিয়েছি। যেন তোমরা আল্লাহর ইবাদত করো এবং গায়রুল্লাহ থেকে বেঁচে থাক।’ (সূরা নাহল : ৩৬)।

হজরত ঈসা (আ.) এর পর থেকে বিশ্বনবীর আগমনÑ মাঝখানের লম্বা এ সময়টায় পৃথিবী অনেক বদলে যায়। বিশেষ করে ‘আরব দেশ’। আরবের মানুষগুলো মনুষ্যত্ব আর মানবতাকে পদদলিত করে এতটা নিচে নেমে যায় যে, ইতিহাস তাদের ‘বর্বর’ বলে অভিহিত করে। চুরি-ডাকাতি, হত্যা-লুটতরাজ, যুদ্ধ-বিগ্রহ, জেনা-ব্যভিচার, মদ-জুয়া, নারী নির্যাতনÑ মোটকথা এমন কোনো অপরাধ নেই যা তারা বাস্তবায়িত করেনি। তাও আবার মাত্রা ছাড়িয়ে। সামান্য কোনো বিষয়ে গোত্রে গোত্রে যুদ্ধ লেগে যেত। সেই যুদ্ধ বংশানুক্রমে চল্লিশ থেকে আশি বছর পর্যন্ত স্থায়ী হতো। কে আপন আর কে পরÑ এর কোনো ফারাক ছিল না। যে যার থেকে পারত তার সম্পদ চুরি করে নিয়ে যেত। এমনকি হাজীরাও তাদের কবল থেকে রেহাই পেত না। কোনো কাফেলা নিরাপদে সফর করতে পারত না। মরুদস্যুরা হামলা করে মাল-সম্পদ, এমনকি নারী-শিশুদের বন্দি করে নিয়ে যেত। তাদের দাস-দাসী হিসেবে বিক্রি করে দিত। জেনার কারণে যে সন্তান হতোÑ বুক ফুলিয়ে সে সন্তানকে নিজের বলে দাবি করত। আর নারী নির্যাতন? এ তো নির্যাতনের সংজ্ঞাকেও হার মানিয়ে ছিল।

নারী কারও সম্পত্তির ওয়ারিশ হতো না। কারণ তারা যুদ্ধাস্ত্র ধরতে অক্ষম। বিধবা? সে তো স্বামীর পরিত্যক্ত সম্পদ। অন্য স্বামী গ্রহণ বা কোথাও চলে যাওয়া সম্পূর্ণ নিষেধ। বিধবাদের ইদ্দত পালন করতে হতো আজব এক নিয়মে। নারী নির্যাতনের চিত্র এতটাই করুণ হয়েছিল যে, মনে হতো মানবতা বলতে পৃথিবীতে আর কিছু বাকি নেই। মানুষ তাই কন্যা সন্তানের জনক হতে লজ্জা পেত। কারও ঔরসে কন্যা সন্তান জন্ম নিলে ভাবনায় পড়ে যেতÑ কন্যাকে জীবিত রাখবে না কি মাটিতে জীবন্ত পুঁতে ফেলবে? অনেকে এ নির্মম কাজটাই করত। এক সাহাবি ইসলাম গ্রহণের পর আফসোস করে বলেন, ‘আমি নিজ হাতে আমার আটটি কন্যা সন্তানকে জীবন্ত পুঁতেছি।’ আহ! কী নির্মম কথা।এ ছিল আরবের অবস্থা। অন্যদিকে ভারতবর্ষে ছিল মানবতার চরম দুর্দশা। হিন্দু গুরুরা রচিত করেছিল সতিদাহ নামে নারী নির্যাতনের এক কলঙ্কিত অধ্যায়। মানুষের মাঝে দাঁড় করেছিল বৈষম্যের দেওয়াল। ইরাক-ইরানে ঘোষণা দেওয়া হয়েছিলÑ ‘ধন আর নারী কারও নিজস্ব সম্পত্তি নয়।’ ফলে তাদের মাঝে ছড়িয়ে পড়ে নারী-পুরুষের অবাধ মেলামেশা। চীন-জাপানে মনে করা হতোÑ ‘আল্লাহর পর তাদের রাজারাই সবচেয়ে বড় খোদা।’ তখনকার সময় পৃথিবীতে ধর্ম বলতে ছিল ইহুদি আর খ্রিষ্টান ধর্ম। ইহুদিরা তাদের ধর্মকে বিকৃত করে এর অস্তিত্বকে নষ্ট করেছিল। খ্রিষ্টানরা একত্ববাদের বিপরীতে ত্রিত্ববাদের বিশ্বাসী ছিল।

পৃথিবীজুড়ে যখন ধর্ম আর সমাজের এ করুণ অবস্থা, মানবতা আর মনুষ্যত্ব ডুকরে ডুকরে কাঁদছিল সমাজের পরতে পরতে, মজলুম আর অসহায়দের হায়-হুতাশ-কান্নায় প্রকম্পিত হচ্ছিল আকাশ-বাতাস, শয়তান আর তাগুতের রাজত্ব কুরে কুরে শেষ করছিল মানবতার অস্তিত্বকে, ঠিক তখনই পুরো পৃথিবীকে মুক্তি দিতে আল্লাহ তায়ালা প্রেরণ করলেন হজরত মুহাম্মদ (সা.) কে। তিনি এলেন আঁধারে আলোর পরশ হয়ে। আল্লাহ বলেন, ‘এটা এমন এক কিতাব যা আমি আপনার কাছে নাজিল করেছিÑ যেন আপনি এর দ্বারা জগতের মানুষকে আঁধার থেকে আলোয় নিয়ে আসতে পারেন।’ (সূরা ইবরাহিম : ০২)।তিনি সেই আলো ছড়িয়ে দিলেন পুরো আরবে। সেই আলোর ছোঁয়ায় বর্বর মানুষগুলো সোনার মানুষের রূপ নিল। এই মানুষগুলোকে তিনি সামনে রেখে পৃথিবীবাসীকে সম্বোধন করে বলেছেন, ‘পৃথিবী সৃষ্টির পর থেকে এর বিনাশ পর্যন্তÑ এই পুরো সময়জুড়ে সব থেকে উৎকৃষ্ট মানুষ হলো আমার সাহাবারা। এরপর তাদের পরবর্তীরা। এরপর তাদের পরবর্তীরা।’ (হাদিস)।আরবের এ বর্বর মানুষগুলো বিশ্বনবীর ছোঁয়ায় সোনার মানুষে বদলে গেল। মানবতাকে দলিতকারী মানুষগুলো হয়ে গেল মানবতার অতন্দ্র প্রহরী। আঁধারে নিমজ্জিত মানুষগুলো বনে গেল আলোর মশালবাহী। সেই মশাল নিয়ে তারা ছুটে গেল পৃথিবীর দিক-দিগন্তে। এ সবকিছুই হয়েছিল বিশ্বনবীর ছোঁয়ায়। কারণ তিনি ছিলেন, মনুষ্যত্ব আর মানবতার ঘোর আঁধারে জ্যোতির্ময় এক আলোর পরশ।

আমার বাংলা নিউজ /২০ নভেম্বর/ ২০১৮

About amarbangla

amarbanglanews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *