বুধবার , ১২ ডিসেম্বর ২০১৮ | দুপুর ২:৫৫

এইমাত্র পাওয়া:

৥ আমার বাংলা TV: দেশ ও মানুষ মানুষের জন্য ৥
৥ আমার বাংলা TV: প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে ৥
৥ আমার বাংলা TV: আবদুল্লাহ আল নোমান-মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেলের কোলাকুলি ৥
৥ আমার বাংলা TV: ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় বিয়ের দাওয়াত খেয়ে ফেরার পথে স্বামী-স্ত্রী নিহত ৥
৥ আমার বাংলা TV: শীতের নেয়ামত বিচিত্র পিঠা ৥
৥ আমার বাংলা TV: রিকশাচালককে পেটানো নারীর পরিচয় কী ৥
৥ আমার বাংলা TV: মহামানবের অমীয় বাণী ৥
৥ আমার বাংলা TV: সালাহর গোলে দ্বিতীয় রাউন্ডে লিভারপুল ৥
৥ আমার বাংলা TV: যে ইউনিয়নের নারীরা পীরের ফতোয়ায় ৩৫ বছর ধরে ভোট দিচ্ছেন না ৥
৥ আমার বাংলা TV: অর্থ আদায়ের ‘অদ্ভুত’ খাত ভিকারুননিসায় ৥
৥ আমার বাংলা TV: নির্বাচনি ইশতেহারে ইসলামের প্রেরণা ৥

নিজেদের মধ্যকার বিরোধ আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বড় বিপদের কারণ হতে পারে : কাদের।

আমার বাংলা TV: নিজেদের মধ্যকার বিরোধ আসন্ন জাতীয় নির্বাচনে বড় বিপদের কারণ হতে পারে উল্লেখ করে কোন্দল মিটিয়ে ফেলতে নেতাকর্মীদের নির্দেশনা দিয়েছেন আওয়ামী লীগ সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, নির্বাচনের ৬ মাসের বেশি নাই। ঘরে ঘরে গিয়ে সদস্য সংগ্রহ করতে হবে। নির্বাচনে কেন্দ্র কমিটি ও পোলিং এজেন্ট ঠিক করতে হবে। নিজেদের কোন্দল মিটিয়ে ফেলতে হবে। তিনি স্বীকার করে বলেন, আমাদের বিভিন্ন কমিটির মধ্যে কিছু সমস্যা আছে। সেখানে বাদ পড়াদের সংযুক্ত করে নিতে হবে। নয়তো নির্বাচনে বড় বিপদের কারণ হতে পারে। নিজেরা নিজেদের সঙ্গে ঝগড়া করে লাভ হবে না।

গতকাল মঙ্গলবার বিকালে বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ১৭ই এপ্রিল মুজিবনগর দিবসে গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশের প্রথম সরকারের শপথ গ্রহণ উপলক্ষ্যে আলোচনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন।বিলবোর্ড কাউকে মনোনয়ন দেবে না উল্লেখ করে কাদের। বলেন, জনমত জরিপে যারা এগিয়ে থাকবে কারা নমিনেশন পাবে। বিলবোর্ড কাউকে মনোনয়ন দেবে না।
আলোচনা সভায় বিএনপির চরম সমালোচনা করে কাদের বলেন, যারা যুদ্ধাপরাধীদের বিচার সমর্থন না করে বিরোধীতা করেছে, তাদের মুখোশ আজ উন্মোচিত হয়েছে। বাংলাদেশে বাস করেও তারা পাকিস্তানের সেবা দাস।

বিএনপিকে উদ্দেশ্য করে তিনি বলেন, তারা ৭ মার্চ মানে না, তারা মুক্তিযুদ্ধ মানে কিনা সন্দেহ আছে। তিনি বলেন, আজ প্রমাণ হয়ে গেছে, বিএনপি মুক্তিযুদ্ধকে ব্যবহার করে নির্বাচনের সময়। তারা মুক্তিকযুদ্ধকে চেতনায় লালন করে না। তিনি বলেন, যারা ক্ষমতায় এসে জাতির পিতার হন্তারকদের পুরস্কৃত করে আমরা তাদের মুক্তিযোদ্ধা বলে স্বীকার করি না। তারা শুধু নির্বাচনের ইশতেহারে মুক্তিযুদ্ধকে ব্যবহার করে, মানুষকে প্রতারিত করে। তিনি বলেন, তারা শুধু বঙ্গবন্ধুকে হত্যা করেই ক্ষান্ত হয়নি, আমাদের নেত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনাকেও হত্যার চেষ্টা করেছিলো। ২১ আগস্ট বিএনপির সরকার আমাদের নেত্রীকে হত্যার চেষ্টা করেছিলো। তাদের যুবরাজ তারেক রহমান এখন টেমস্ নদীর পাড়ে বসে দেশকে অস্থিতিশীল করার চেষ্টা করছে।

কাদের বলেন, তারা ৯ বছর ধরে আন্দোলনের ডাক দিয়েও ৯ মিনিটের জন্য রাস্তায় দাঁড়াতে পারেনি। আমারা বাধাও দেইনি। আন্দোলনে ব্যর্থ হয়ে তারা এখন ষড়যন্ত্রের পথ বেছে নিয়েছে। সাধারণ শিক্ষার্থীদের কোটা সংস্কার আন্দোলনকে ওই তারেক রহমান সরকারবিরোধী আন্দোলনে রূপ দেয়ার অপচেষ্টা চালিয়েছিল। আমরা দেখেছি, তারেক রহমান লন্ডনে বসে এ আন্দোলনকে ভিন্ন খাতে নেয়ার অপচেষ্টা চালিয়েছে। তার একটি অডিও টেপ আমরা শুনেছি। প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার পর ছাত্ররা যখন ফিরে গেলো তখন বিএনপির নেতৃত্ব চুপসে গেছে বলে মন্তব্য করেন তিনি। তারেক রহমান ঢাকা বিশ্বিবিদ্যালয়কে অস্থিতিশীল করতে অডিও বার্তা পাঠিয়েছিল দাবি করে কাদের বলেন, লন্ডনে বসে তারেক রহমান দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র করছে।

কোটা সংস্কার আন্দোলনকে সরকার বিরোধী আন্দোলনে রূপ দিতে টাকা বিলানো হয়েছিল। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে তাদের সব ষড়যন্ত্র ব্যর্থ করে দেয়া হয়েছে। তাই শেখ হাসিনার ঘোষণা আন্দোলনকারীদের স্বস্তি দিলেও বিএনপি শান্তিতে নেই।সমাবেশে আওয়ামী লীগের সম্পাদকমলীর সদস্য মতিয়া চৌধুরী বলেন, মানুষকে মারা যায় কিন্তু তার স্বপ্নকে কখনও মারা যায় না। বঙ্গবন্ধু আজ আমাদের মাঝে নেই কিন্তু তার স্বপ্ন বেঁচে আছে। সেই স্বপ্ন এগিয়ে নিচ্ছেন জননেত্রী শেখ হাসিনা। শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ এখন উন্নয়নের মহাসড়কে প্রবেশ করেছে। এই অগ্রযাত্রা অব্যাহত রাখতে শেখ হাসিনার পাশে আমাদের থাকতে হবে। কোন ষড়যন্ত্র যেনো এ অগ্রযাত্রা রুখে দিতে না পারে।
দলটির অন্যতম যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর কবির নানক বলেন, জিয়াউর রহমান-মোস্তাক আহমেদ-এরশাদরা ১৭ এপ্রিলকে মুছে ফেলার চেষ্টা করেছিল বঙ্গবন্ধুকে হত্যার মধ্যদিয়ে। তারা এ দেশকে পাকিস্তান বানাতে চেয়েছিলো

কিন্তু দেশের জনগণ সেটি মেনে নেয়নি। জাতির জনকের মেয়ে শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ ক্ষমতায় এসেছে। তিনি বলেন, শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দেশ যখন এগিয়ে যাচ্ছে ওই জামায়াত-বিএনপি সরকারকে উৎখাতে বারবার অপচেষ্টা করছে। তারেক রহমান লন্ডনে বসে সাধারণ ছাত্রদের আন্দোলন ভিন্ন খাতে নেয়ার অপচেষ্টা চালাচ্ছে। আমাদের এসকল অপচেষ্টা রুখে দিতে সতর্ক থাকতে হবে।
স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁন কামাল বলেন, যে বাংলাদেশর স্বপ্ন জাতির পিতা শেখ মুজিবুর রহমান দেখেছিলেন জননেত্রী শেখ হাসিনা দেশকে সেই দেখানো পথে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছেন। তিনি বলেন, একটি চক্র দেশকে অস্থিতিশীল করে তোলার চেষ্টা করছে। সন্ত্রাস-জঙ্গিবাদের মধ্যদিয়ে তাদের চালানো এ অপচেষ্টা কখনও সফল হবে না। কোন ষড়যন্ত্রের কাছে শেখ হাসিনার সরকার মাথানত করবে না বলে হুশিয়ারী করেন তিনি।

খাদ্যমন্ত্রী কামরুল ইসলাম বলেন, যারা মুক্তিযুদ্ধের ইতিহাসকে কটাক্ষ করে শহীদ সংখ্যা নিয়ে প্রশ্ন তোলে তাদের এ দেশের রাজনীতি থেকে বিতাড়িত করতে হবে। বিএনপির দিকে অভিযোগ ছুঁড়ে দিয়ে তাদের অগণতান্ত্রিক আচরণ রুখে দিতে আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদের সচেতন থাকার আহŸান জানান তিনি। তিনি বলেন, দলটি আওয়ামী লীগ সরকারের উন্নয়ন স্বীকার করে না। তারা এখন নির্বাচন বানচালের অপচেষ্টা করছে। তাদের এ অপচেষ্টা রুখে দিতে আমাদের সচেতন থাকতে হবে। মহানগর উত্তর আওয়ামী লীগের সভাপতি এ কেএম রহমতউল্লাহর সভাপতিত্বে আলোচনা সভায় আরও বক্তব্য রাখেন সভাপতিমন্ডলীর সদস্য সাহারা খাতুন, আব্দুল মতিন খসরু, সাংগঠনিক সম্পাদক আহমদ হোসেন, মহিবুল হাসান চৌধুরী নওফেল, দপ্তর সম্পাদক আব্দুস সোবহান গোলাপ, দুর্যোগ ও ত্রাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দীসহ অনেকে। 

আমার বাংলা নিউজ /১৮ এপ্রিল  / ২০১৮

 

 

About amarbangla

amarbanglanews

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *